ঢাকা ১২:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইসরায়েলে হামাসের হামলা এমনিতেই হয়নি :জাতিসংঘ মহাসচিব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
  • আপডেট সময় : ০৫:০২:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩ ১০৭ বার পঠিত

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন,ফিলিস্তিনের মানুষ ৫৬ বছর ধরে শ্বাসরুদ্ধকর দখলদারিত্বের মধ্যে রয়েছে। ইসরায়েলে হামাসের হামলা এমনিতেই হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে গাজাবাসীকে তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত রাখার কারণেই এমন হামলার ঘটনা ঘটেছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের উদ্দেশ্যে গত মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে তিনি। (সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা)।
জাতিসংঘের মহাসচিব বলেন, গাজাবাসীদের ভূখন্ড স্থিরভাবে গ্রাস করা হয়েছে, তারা সহিংসতায় জর্জরিত হয়েছে, অর্থনীতির গলা টিপে রাখা হয়েছে, তাদের বাস্তুচ্যুত করা হয়েছে এবং বাড়ি-ঘর ভেঙে ফেলা হয়েছে। এই সমস্যার রাজনৈতিক সমস্যার যে আশা ছিল সেটি হারিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, এমন গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে নীতি স্পষ্ট হওয়া জরুরি। এর প্রথমেই থাকবে বেসামরিকদের শ্রদ্ধা ও সুরক্ষার মৌলিক নীতি।
গাজায় আরও জরুরি মানবিক ত্রাণ সহযোগিতা সরবরাহের ওপরও গুরুত্বারোপ করেছেন গুতেরেস। গাজায় জাতিসংঘের জ্বালানির মজুদ কয়েক দিনের মধ্যে ফুরিয়ে যাবে। এটি আরেকটি বিপর্যয় হবে।

ট্যাগস :

ইসরায়েলে হামাসের হামলা এমনিতেই হয়নি :জাতিসংঘ মহাসচিব

আপডেট সময় : ০৫:০২:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন,ফিলিস্তিনের মানুষ ৫৬ বছর ধরে শ্বাসরুদ্ধকর দখলদারিত্বের মধ্যে রয়েছে। ইসরায়েলে হামাসের হামলা এমনিতেই হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে গাজাবাসীকে তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত রাখার কারণেই এমন হামলার ঘটনা ঘটেছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের উদ্দেশ্যে গত মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে তিনি। (সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা)।
জাতিসংঘের মহাসচিব বলেন, গাজাবাসীদের ভূখন্ড স্থিরভাবে গ্রাস করা হয়েছে, তারা সহিংসতায় জর্জরিত হয়েছে, অর্থনীতির গলা টিপে রাখা হয়েছে, তাদের বাস্তুচ্যুত করা হয়েছে এবং বাড়ি-ঘর ভেঙে ফেলা হয়েছে। এই সমস্যার রাজনৈতিক সমস্যার যে আশা ছিল সেটি হারিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, এমন গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে নীতি স্পষ্ট হওয়া জরুরি। এর প্রথমেই থাকবে বেসামরিকদের শ্রদ্ধা ও সুরক্ষার মৌলিক নীতি।
গাজায় আরও জরুরি মানবিক ত্রাণ সহযোগিতা সরবরাহের ওপরও গুরুত্বারোপ করেছেন গুতেরেস। গাজায় জাতিসংঘের জ্বালানির মজুদ কয়েক দিনের মধ্যে ফুরিয়ে যাবে। এটি আরেকটি বিপর্যয় হবে।