ঢাকা ০৪:৫৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাটমোহরে নতুন কারিকুলামের শিক্ষক প্রশিক্ষণে ব্যাপক অনিয়ম

চাটমোহর(পাবনা) প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৫:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৪০ বার পঠিত

পাবনার চাটমোহরে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের সেকেন্ডারী এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোপ্রামের ডিসেমিনেশন অব নিউ কারিকুলাম স্কীম এর অধীনে অষ্টম ও নবম শ্রেণীর জন্য “নতুন কারিকুলাম বিস্তরণ” বিষয়ক সাত দিনব্যাপী শিক্ষক প্রশিক্ষণ চলছে। চাটমোহরে গত ১৮ ডিসেম্বর এ প্রশিক্ষণ শুরু হয়। আজ রোববার শেষ হবে। প্রশিক্ষণের শুরু থেকেই নানা অনিয়মের কারণে এ প্রশিক্ষণের সফলতা প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে দেওয়া হচ্ছে শিক্ষক প্রশিক্ষণ। অনিয়মের মাধ্যমে এবতেদায়ী পর্যায়ের শিক্ষক,মাদ্রাসার আলীম পর্যায়ের শিক্ষক ও কলেজ শাখার শিক্ষক-কর্মচারীদেরও এ প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহনের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। বিশেষ সুবিধা নেওয়া হচ্ছে কিনা,সে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১৮ ডিসেম্বর থেকে চাটমোহর সরকারি আর.সি.এন এন্ড বি.এস.এন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ভেন্যুতে এ প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। আজ রোববার শেষ হবে প্রশিক।ষণ। হরিপুর দূর্গাদাস স্কুল এন্ড কলেজের কলেজ শাখার ইংরজী প্রভাষক মোঃ ইয়াকুব আলী,রাসায়ন ও পদার্থ বিজ্ঞানের প্রদর্শক হাসিউর রহমান,ভূগোলের প্রদর্শক শিল্পী আক্তার,ক্রীড়া শিক্ষক শওকত আলী,হোগলবাড়িয়া আলীম মাদরাসার বাংলা বিষয়ের সহকারি অধ্যাপক মো. শহিদুল ইসলাম, চাটমোহর এনায়েতুল্লাহ ইসলামিয়া ফাযিল (ডিগ্রী) মাদরাসার এবতেদায়ী পর্যায়ের সহকারী শিক্ষক আরেফিন ইসলাম, চাটমোহর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রদর্শক আপেল মাহমুদ,হরিপুর বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচ্ছনতাকর্মীসহ এমন আরো কিছু বিশেষ ব্যক্তি এ প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। আরবী বিষয়ের শিক্ষকদের এ প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণ করার সুযোগ না থাকলেও প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন আরবী বিষয়ের শিক্ষকরা। কেউ কেউ প্রথম দুই তিন দিন প্রশিক্ষণে অংশ নানিয়ে ২১ তারিখ থেকে প্রশিক্ষণ নিতে শুরু করেছেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মগরেব আলী জানান, ৭৭৫ শিক্ষক এ প্রশিক্ষণে অংশ নিয়েছেন। জনবলের অভাবে একজন প্রদর্শককে অফিসিয়াল কাজে নিযুক্ত করেছিলাম,তিনি বর্তমানে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। হরিপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে তিনদিন প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানান তিনি। কলেজ ও এবতেদায়ী পর্যায়ের শিক্ষক এ প্রশিক্ষণে অংশগ্রহষের কোন সুযোগ নেই বলে জানালেন। এমন কেউ এ প্রশিক্ষণে অংশ নিলে ব্যবস্থা নেবেন বলে বললেন এই কর্মকর্তা।

ট্যাগস :

চাটমোহরে নতুন কারিকুলামের শিক্ষক প্রশিক্ষণে ব্যাপক অনিয়ম

আপডেট সময় : ০৭:৫৫:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩

পাবনার চাটমোহরে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের সেকেন্ডারী এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোপ্রামের ডিসেমিনেশন অব নিউ কারিকুলাম স্কীম এর অধীনে অষ্টম ও নবম শ্রেণীর জন্য “নতুন কারিকুলাম বিস্তরণ” বিষয়ক সাত দিনব্যাপী শিক্ষক প্রশিক্ষণ চলছে। চাটমোহরে গত ১৮ ডিসেম্বর এ প্রশিক্ষণ শুরু হয়। আজ রোববার শেষ হবে। প্রশিক্ষণের শুরু থেকেই নানা অনিয়মের কারণে এ প্রশিক্ষণের সফলতা প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে দেওয়া হচ্ছে শিক্ষক প্রশিক্ষণ। অনিয়মের মাধ্যমে এবতেদায়ী পর্যায়ের শিক্ষক,মাদ্রাসার আলীম পর্যায়ের শিক্ষক ও কলেজ শাখার শিক্ষক-কর্মচারীদেরও এ প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহনের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। বিশেষ সুবিধা নেওয়া হচ্ছে কিনা,সে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১৮ ডিসেম্বর থেকে চাটমোহর সরকারি আর.সি.এন এন্ড বি.এস.এন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ভেন্যুতে এ প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। আজ রোববার শেষ হবে প্রশিক।ষণ। হরিপুর দূর্গাদাস স্কুল এন্ড কলেজের কলেজ শাখার ইংরজী প্রভাষক মোঃ ইয়াকুব আলী,রাসায়ন ও পদার্থ বিজ্ঞানের প্রদর্শক হাসিউর রহমান,ভূগোলের প্রদর্শক শিল্পী আক্তার,ক্রীড়া শিক্ষক শওকত আলী,হোগলবাড়িয়া আলীম মাদরাসার বাংলা বিষয়ের সহকারি অধ্যাপক মো. শহিদুল ইসলাম, চাটমোহর এনায়েতুল্লাহ ইসলামিয়া ফাযিল (ডিগ্রী) মাদরাসার এবতেদায়ী পর্যায়ের সহকারী শিক্ষক আরেফিন ইসলাম, চাটমোহর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রদর্শক আপেল মাহমুদ,হরিপুর বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচ্ছনতাকর্মীসহ এমন আরো কিছু বিশেষ ব্যক্তি এ প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। আরবী বিষয়ের শিক্ষকদের এ প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণ করার সুযোগ না থাকলেও প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন আরবী বিষয়ের শিক্ষকরা। কেউ কেউ প্রথম দুই তিন দিন প্রশিক্ষণে অংশ নানিয়ে ২১ তারিখ থেকে প্রশিক্ষণ নিতে শুরু করেছেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মগরেব আলী জানান, ৭৭৫ শিক্ষক এ প্রশিক্ষণে অংশ নিয়েছেন। জনবলের অভাবে একজন প্রদর্শককে অফিসিয়াল কাজে নিযুক্ত করেছিলাম,তিনি বর্তমানে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। হরিপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে তিনদিন প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানান তিনি। কলেজ ও এবতেদায়ী পর্যায়ের শিক্ষক এ প্রশিক্ষণে অংশগ্রহষের কোন সুযোগ নেই বলে জানালেন। এমন কেউ এ প্রশিক্ষণে অংশ নিলে ব্যবস্থা নেবেন বলে বললেন এই কর্মকর্তা।