ঢাকা ১২:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাটমোহরে বাড়িঘরে হামলা,ভাঙ্চুর ও লুটপাটের অভিযোগ

আমাদের বড়াল ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৭:০৪:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪ ২৭১ বার পঠিত

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের রাজারদিয়ার গ্রামে সন্ত্রাসী কায়দায় সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙ্চুর ও লুটপাট করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দিবাগত রাত ১টার দিকে। বাড়ির মালিক আঃ মজিদ ৯৯৯-এ ফোন করলে চাটমোহর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যাবার আহেই দুর্বৃত্তরা তান্ডব চালিয়ে চলে যায়।
বুধবার (১৩ মার্চ) সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়,রাজারদিয়ার গ্রামের আঃ মজিদের বাড়ির তিনটি ঘর ও টয়লেটের নতুন টিনগুলো ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছিন্নভিন্ন করা হয়েছে। ভাঙ্চুর করা হয়েছে মোটরসাইকেল। একটি বসতবাড়ি ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। আঃ মজিদ জানান,রাত ১টার দিকে আফ্রাতপাড়া মহল্লার বাসিন্দা সদর আলী মাস্টারের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী তার বাড়িতে সশস্ত্র অবস্থায় হামলা চালায়। তারা ব্যাপকভাবে ভাঙ্চুর করে। এসময় তারা নগদ লক্ষাধিক টাকা,স্বর্ণালংকার লুটপাট করে। বাধা দিলে তাদের হাতে মারপিটের শিকার হন আঃ মজিদ,তার স্ত্রী ও ছেলে। এক পর্যায়ে ৯৯৯-এ ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। তার আগেই চলে যায় সন্ত্রাসীরা।
এলাকাবাসী জানান,আঃ মজিদের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে সদর মাস্টারের। সেই বিরোধের জের ধরে সদর আলী মাস্টার লোকজন নিয়ে এসে গভীর রাতে বাড়িঘর ভাঙ্চুর ও লুটপাট করেছে। তাদের হাতে রামদাসহ অন্যান্য অস্ত্র থাকায় কেউ এগুতে সাহস পায়নি। এ ব্যাপারে আঃ মজিদ বুধবার চাটমোহর থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত সদর আলী মাস্টারের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সেলিম রেজা জানান,থবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্যাগস :

চাটমোহরে বাড়িঘরে হামলা,ভাঙ্চুর ও লুটপাটের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৭:০৪:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের রাজারদিয়ার গ্রামে সন্ত্রাসী কায়দায় সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙ্চুর ও লুটপাট করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দিবাগত রাত ১টার দিকে। বাড়ির মালিক আঃ মজিদ ৯৯৯-এ ফোন করলে চাটমোহর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যাবার আহেই দুর্বৃত্তরা তান্ডব চালিয়ে চলে যায়।
বুধবার (১৩ মার্চ) সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়,রাজারদিয়ার গ্রামের আঃ মজিদের বাড়ির তিনটি ঘর ও টয়লেটের নতুন টিনগুলো ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছিন্নভিন্ন করা হয়েছে। ভাঙ্চুর করা হয়েছে মোটরসাইকেল। একটি বসতবাড়ি ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। আঃ মজিদ জানান,রাত ১টার দিকে আফ্রাতপাড়া মহল্লার বাসিন্দা সদর আলী মাস্টারের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী তার বাড়িতে সশস্ত্র অবস্থায় হামলা চালায়। তারা ব্যাপকভাবে ভাঙ্চুর করে। এসময় তারা নগদ লক্ষাধিক টাকা,স্বর্ণালংকার লুটপাট করে। বাধা দিলে তাদের হাতে মারপিটের শিকার হন আঃ মজিদ,তার স্ত্রী ও ছেলে। এক পর্যায়ে ৯৯৯-এ ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। তার আগেই চলে যায় সন্ত্রাসীরা।
এলাকাবাসী জানান,আঃ মজিদের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে সদর মাস্টারের। সেই বিরোধের জের ধরে সদর আলী মাস্টার লোকজন নিয়ে এসে গভীর রাতে বাড়িঘর ভাঙ্চুর ও লুটপাট করেছে। তাদের হাতে রামদাসহ অন্যান্য অস্ত্র থাকায় কেউ এগুতে সাহস পায়নি। এ ব্যাপারে আঃ মজিদ বুধবার চাটমোহর থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত সদর আলী মাস্টারের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সেলিম রেজা জানান,থবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।