ঢাকা ০৫:২০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাটমোহরে বৃষ্টির জন্য সালাতুল ইসতিস্কার আদায়

বড়াল প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় : ০৫:৪০:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪ ৬৮ বার পঠিত

Z

অব্যাহত তীব্র তাপদাহ,খরা আর অনাবৃষ্টিতে অতিষ্ঠ জনজীবন। মানুষের পাশাপাশি প্রাণিকূলের জীবনও বিপন্ন। পুড়ছে ফসলের মাঠ। ঝরে পড়ছে আম ও লিচু। গরমে হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। বেড়েছে নানা রোগের প্রাদুর্ভাব। বৈশাখের এই সময়ে প্রতিদিনই বাড়ছে তাপমাত্রা। মানুষের প্রাণ ওষ্ঠাগত। পানির জন্য হাহাকার। বৃষ্টির জন্য আকাশপাণে চাতক পাখির মতো তাকিয়ে মানুষ। এ অবস্থায় পাবনা,চাটমোহরে আদায় করা হয়েছে সালতুল ইসতিস্কার। আজ শনিবার (২৭ এপ্রিল) সালাতুল ইসতিস্কার অনুষ্ঠিত হয়েছে চাটমোহর পৌর শহরের বালুচর খেলার মাঠে সকাল ১১টায়। বাংলাদেশ ওলামা পরিষদ এই নামাজের আয়োজন করে। নামাজে অংশ নিতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ সমবেত হন। কয়েক শত মানুষ এই সালাতে অংশ নেন এবং বৃষ্টিার জন্য মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে করুনা ভিক্ষা করেন। নামাজে ইমামতি করেন মুফতি মওলানা মোঃ আব্দুল আহাদ। তাওবাতুন নাসুহা বা একনিষ্ঠ তাওবার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে রহমতের বৃষ্টি কামনা করে ২ রাকাত নফল নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা। মোনাজাতে মুসল্লিরা অঝোরে চোখের পানি ছেড়ে দেন এবং তওবা ও ক্ষমা প্রার্থনা করেন আল্লাহর কাছে। এছাড়া উপজেলার হান্ডিয়াল কলেজ মাঠে সকাল ১০টায় এলাকাবাসীর আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় ইসতিস্কার নামাজ।

ট্যাগস :

চাটমোহরে বৃষ্টির জন্য সালাতুল ইসতিস্কার আদায়

আপডেট সময় : ০৫:৪০:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪

অব্যাহত তীব্র তাপদাহ,খরা আর অনাবৃষ্টিতে অতিষ্ঠ জনজীবন। মানুষের পাশাপাশি প্রাণিকূলের জীবনও বিপন্ন। পুড়ছে ফসলের মাঠ। ঝরে পড়ছে আম ও লিচু। গরমে হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। বেড়েছে নানা রোগের প্রাদুর্ভাব। বৈশাখের এই সময়ে প্রতিদিনই বাড়ছে তাপমাত্রা। মানুষের প্রাণ ওষ্ঠাগত। পানির জন্য হাহাকার। বৃষ্টির জন্য আকাশপাণে চাতক পাখির মতো তাকিয়ে মানুষ। এ অবস্থায় পাবনা,চাটমোহরে আদায় করা হয়েছে সালতুল ইসতিস্কার। আজ শনিবার (২৭ এপ্রিল) সালাতুল ইসতিস্কার অনুষ্ঠিত হয়েছে চাটমোহর পৌর শহরের বালুচর খেলার মাঠে সকাল ১১টায়। বাংলাদেশ ওলামা পরিষদ এই নামাজের আয়োজন করে। নামাজে অংশ নিতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ সমবেত হন। কয়েক শত মানুষ এই সালাতে অংশ নেন এবং বৃষ্টিার জন্য মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে করুনা ভিক্ষা করেন। নামাজে ইমামতি করেন মুফতি মওলানা মোঃ আব্দুল আহাদ। তাওবাতুন নাসুহা বা একনিষ্ঠ তাওবার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে রহমতের বৃষ্টি কামনা করে ২ রাকাত নফল নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা। মোনাজাতে মুসল্লিরা অঝোরে চোখের পানি ছেড়ে দেন এবং তওবা ও ক্ষমা প্রার্থনা করেন আল্লাহর কাছে। এছাড়া উপজেলার হান্ডিয়াল কলেজ মাঠে সকাল ১০টায় এলাকাবাসীর আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় ইসতিস্কার নামাজ।