ঢাকা ১০:২৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাটমোহরে বেগুনের কেজি ৫ টাকা!

বড়াল প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় : ০৭:২৯:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ মার্চ ২০২৪ ১৩৯ বার পঠিত

পাবনার চাটমোহরে মাত্র চার দিনের ব্যবধানে ৬০ টাকা কেজি দরের বেগুন এখন পাইকারী বাজারে ৫ থেকে ১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খুচরা বাজারে সেই বেগুন বিক্রি করা হচ্ছে সর্বোচ্চ ১৫ টাকা কেজি দরে। তারপরও মিলছেনা ক্রেতা। শনিবার (১৬ মার্চ) চাটমোহরের বিভিন্ন বাজারে এ দরে বেগুন বিক্রি হতে দেখা যায়। অথচ রমজানের প্রথমদিন চাটমোহরের হাট-বাজারে ৬০ কেজি দরে বিক্রি হয়েছে এ সবজি।
চাটমোহর পুরাতন বাজারের খুচরা সবজি বিক্রেতা সাদ্দাম হোসেন বলেন,বাজারে বেগুনের ব্যাপক আমদানি হয়েছে। বাজারের সবচেয়ে ভালো বেগুন বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকা কেজি। আর একটু নিম্নমানের বেগুন পাঁচ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আড়তে এতো বেশি বেগুনের আমদানি হয়েছে যে খুচরা বিক্রেতাদের চাহিদার কয়েকগুণ বেশি। অনেক কৃষক বাজারে খুচরা বেগুণ বিক্রি করছেন। যে যার মতো কম দামে বেগুন বিক্রি করছেন। কিছু করার নেই। কাঁচামালের ব্যবসা এমনই হয়।’
মথুরাপুরের বেগুন চাষি আক্কাস আলী বলেন,অসময়ের বেগুন চাষে গতবছর রমজানে চাষিরা ভালো দাম পেয়েছিলেন। তাই এবারও অনেকেই বেগুন চাষ করেছেন। কিন্তু এবার বেগুনের দাম তুলনামূলক অনেক কম। বেগুন চাষিদের এবার লোকসান গুনতে হবে।
বাজারে সবজি কিনতে আসা ছোট শালিখা মহল্লার মোহাম্মদ আলী বলেন,‘বেগুনের দাম শুনে আমি নিজেই অবাক হলাম। গতবছর রমজানে প্রতিকেজি বেগুন ৬০-৯০ টাকা কেজি দরে কিনেছি। এবারও প্রথম রোজায় ৫০ টাকা কেজি কিনতে হয়েছে। ভেবেছিলাম,এর কমে আর বেগুন মিলবেনা। কিন্তু এসে দেখছি বেগুন ১০ টাকা কেজি। তাই এক কেজি বেগুন কেনার ইচ্ছা থাকলেও দাম শুনে দুই কেজি কিনেছি।’
চাটমোহর পুরাতন বাজারের আড়তদার ও চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির কার্যকরী সদস্য সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিন প্রচুর বেগুন আড়তে আসছে। দুপুরে ২ টাকা কেজি বেগুনও বিক্রি হয়েছে। প্রথম রমজানে বেগুনের যে দাম ছিল এখন তার চার ভাগের এক ভাগ দামও নেই। তবে কয়েকদিনের মধ্যে বেগুনের দাম আবার বেড়ে যেতে পারে বলে জানান তিনি।

ট্যাগস :

চাটমোহরে বেগুনের কেজি ৫ টাকা!

আপডেট সময় : ০৭:২৯:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ মার্চ ২০২৪

পাবনার চাটমোহরে মাত্র চার দিনের ব্যবধানে ৬০ টাকা কেজি দরের বেগুন এখন পাইকারী বাজারে ৫ থেকে ১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খুচরা বাজারে সেই বেগুন বিক্রি করা হচ্ছে সর্বোচ্চ ১৫ টাকা কেজি দরে। তারপরও মিলছেনা ক্রেতা। শনিবার (১৬ মার্চ) চাটমোহরের বিভিন্ন বাজারে এ দরে বেগুন বিক্রি হতে দেখা যায়। অথচ রমজানের প্রথমদিন চাটমোহরের হাট-বাজারে ৬০ কেজি দরে বিক্রি হয়েছে এ সবজি।
চাটমোহর পুরাতন বাজারের খুচরা সবজি বিক্রেতা সাদ্দাম হোসেন বলেন,বাজারে বেগুনের ব্যাপক আমদানি হয়েছে। বাজারের সবচেয়ে ভালো বেগুন বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকা কেজি। আর একটু নিম্নমানের বেগুন পাঁচ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আড়তে এতো বেশি বেগুনের আমদানি হয়েছে যে খুচরা বিক্রেতাদের চাহিদার কয়েকগুণ বেশি। অনেক কৃষক বাজারে খুচরা বেগুণ বিক্রি করছেন। যে যার মতো কম দামে বেগুন বিক্রি করছেন। কিছু করার নেই। কাঁচামালের ব্যবসা এমনই হয়।’
মথুরাপুরের বেগুন চাষি আক্কাস আলী বলেন,অসময়ের বেগুন চাষে গতবছর রমজানে চাষিরা ভালো দাম পেয়েছিলেন। তাই এবারও অনেকেই বেগুন চাষ করেছেন। কিন্তু এবার বেগুনের দাম তুলনামূলক অনেক কম। বেগুন চাষিদের এবার লোকসান গুনতে হবে।
বাজারে সবজি কিনতে আসা ছোট শালিখা মহল্লার মোহাম্মদ আলী বলেন,‘বেগুনের দাম শুনে আমি নিজেই অবাক হলাম। গতবছর রমজানে প্রতিকেজি বেগুন ৬০-৯০ টাকা কেজি দরে কিনেছি। এবারও প্রথম রোজায় ৫০ টাকা কেজি কিনতে হয়েছে। ভেবেছিলাম,এর কমে আর বেগুন মিলবেনা। কিন্তু এসে দেখছি বেগুন ১০ টাকা কেজি। তাই এক কেজি বেগুন কেনার ইচ্ছা থাকলেও দাম শুনে দুই কেজি কিনেছি।’
চাটমোহর পুরাতন বাজারের আড়তদার ও চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির কার্যকরী সদস্য সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিন প্রচুর বেগুন আড়তে আসছে। দুপুরে ২ টাকা কেজি বেগুনও বিক্রি হয়েছে। প্রথম রমজানে বেগুনের যে দাম ছিল এখন তার চার ভাগের এক ভাগ দামও নেই। তবে কয়েকদিনের মধ্যে বেগুনের দাম আবার বেড়ে যেতে পারে বলে জানান তিনি।