ঢাকা ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাটমোহরে মসজিদের কমিটি নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২০ জন আহত

বিশেষ প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ০৫:২৯:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪ ৬১ বার পঠিত

পাবনার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের বেজপাটিয়াতা জামে মসজিদের কমিটি নিয়ে পুর্ব বিরোধের জের ধরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্ততঃ ২০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ১৫ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি গতকাল শুক্রবার দুপুরে। আহতরা হলেন বেজপাটিয়াতা গ্রামের রাশেদুল ইসলাম (৪৫),জাহাঙ্গীর আলম (৩৫), সাজেদুল ইসলাম (৩৬), মোঃ শরীফ (৩২), আজাদুল ইসলাম (৩৫), আরিফ হোসেন ৩৫), রাসেল আহমেদ(২৫), আঃ মমিন(৩৬), মিঠু সরদার (৪৩), মাবুব মোল্লা (৪২), রাশেদুল (৪৫), মজনুর রহমান (৪৬), তারেকুল ইসলাম (৪২), আলহাজ্ব মোকছেদ (৬০) ও মোঃ মামুন (৩৮)। পুলিশ ঘটনাস্থল পরবদর্শন করেছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়,বেজপাটিয়াতা জামে মসজিদের কমিটি নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছে। মসজিদের নামে মৎস্য দপ্তরের ২০ বিঘা পুকুর জবর দখল করে রাখা হয়েছে। যা পুর্বে নিমগাছি প্রকল্পের আওতায় ছিল। কমিটি নিয়ে মামলা মেকদ্দমাও চলমান। সম্প্রতি সর্বসম্মতিক্রমে মোকছেদ আলী সরদারকে সভাপতি ও রহমত আলীকে সাধারন সম্পাদক করে কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু এক পক্ষ এ কমিটি না মেনে জিয়াউদ্দিনকে সভাপতি ও রবিউল করিমকে সাধারন সম্পাদক করে স্বঘোষিত কমিটি করে মসজিদ ও পুকুর দখল নিয়ে নেয়। পুকুর লিজ দিয়ে হাতিয়ে নেয় মোটা টাকা। এ নিয়ে বিরোধ তুঙ্গে ওঠে। এরই জের ধরে শুক্রবার উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে জিয়াউদ্দিন-রবিউল গং মোকছেদ গং এর উপর হামলা চালায় ও মারপিট শুরু করে। মোকছেদ গং প্রতিহত করলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত (রাত সাড়ে ৯টা) থানায় মামলা হয়নি। তবে প্রস্তুতি চলছিল।
চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ট্যাগস :

চাটমোহরে মসজিদের কমিটি নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২০ জন আহত

আপডেট সময় : ০৫:২৯:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪

পাবনার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের বেজপাটিয়াতা জামে মসজিদের কমিটি নিয়ে পুর্ব বিরোধের জের ধরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্ততঃ ২০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ১৫ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি গতকাল শুক্রবার দুপুরে। আহতরা হলেন বেজপাটিয়াতা গ্রামের রাশেদুল ইসলাম (৪৫),জাহাঙ্গীর আলম (৩৫), সাজেদুল ইসলাম (৩৬), মোঃ শরীফ (৩২), আজাদুল ইসলাম (৩৫), আরিফ হোসেন ৩৫), রাসেল আহমেদ(২৫), আঃ মমিন(৩৬), মিঠু সরদার (৪৩), মাবুব মোল্লা (৪২), রাশেদুল (৪৫), মজনুর রহমান (৪৬), তারেকুল ইসলাম (৪২), আলহাজ্ব মোকছেদ (৬০) ও মোঃ মামুন (৩৮)। পুলিশ ঘটনাস্থল পরবদর্শন করেছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়,বেজপাটিয়াতা জামে মসজিদের কমিটি নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছে। মসজিদের নামে মৎস্য দপ্তরের ২০ বিঘা পুকুর জবর দখল করে রাখা হয়েছে। যা পুর্বে নিমগাছি প্রকল্পের আওতায় ছিল। কমিটি নিয়ে মামলা মেকদ্দমাও চলমান। সম্প্রতি সর্বসম্মতিক্রমে মোকছেদ আলী সরদারকে সভাপতি ও রহমত আলীকে সাধারন সম্পাদক করে কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু এক পক্ষ এ কমিটি না মেনে জিয়াউদ্দিনকে সভাপতি ও রবিউল করিমকে সাধারন সম্পাদক করে স্বঘোষিত কমিটি করে মসজিদ ও পুকুর দখল নিয়ে নেয়। পুকুর লিজ দিয়ে হাতিয়ে নেয় মোটা টাকা। এ নিয়ে বিরোধ তুঙ্গে ওঠে। এরই জের ধরে শুক্রবার উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে জিয়াউদ্দিন-রবিউল গং মোকছেদ গং এর উপর হামলা চালায় ও মারপিট শুরু করে। মোকছেদ গং প্রতিহত করলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত (রাত সাড়ে ৯টা) থানায় মামলা হয়নি। তবে প্রস্তুতি চলছিল।
চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।