ঢাকা ১০:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাটমোহরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূর মাথার চুল কর্তন

বড়াল প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় : ০৪:৪১:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৯৪ বার পঠিত

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মুলগ্রাম ইউনিয়নের পাথাইলহাট গ্রামে পরিবারের সদস্যরা এক গৃহবধূকে যৌতুকের দাবিতে মারপিট করে মাথার চুল কর্তন করেছে বলে অভিযোগ। ৯৯৯-এ কল করার পর চাটমোহর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে গৃহবধূর পিতা চাটমোহর থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।
জানা গেছে,পাথাইলহাট গ্রামের আলামিন হোসেন তার স্ত্রী অন্তরা খাতুনকে নানা কারণে মারপিট করতো। আলামিনের মা পুত্রবধূকে গালমন্দ করতো বিভিন্ন সময়ে। গত শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) রাতে আলামিন যৌতুকের দাবি করে না পেয়ে তার স্ত্রীকে মারধর করে। একপর্যায়ে স্ত্রীর মাথার চুল কেটে দেয়। খবর পেয়ে অন্তরার পিতা ছোট গুয়াখড়া গ্রামের মানিক হোসেন মেয়ের বাড়িতে গেলে,তাকে মেয়ের সাথে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। গ্রামের লোকজনকে বলার পর কোন প্রতিকার না পেয়ে ৯৯৯-এ ফোন করেন। পুলিশ শনিবার (২ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে গিয়ে গৃহবধূ অন্তরাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। অন্তরার পিতা থানায় অভিযোগ করেন। গৃহবধূর শ^শুড় আবুল কাশেম,অন্তরাকে মারপিট করা কিংবা যৌতুক দাবি করার ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যে। প্রতিদিন বাড়ির কাজকর্ম শেষে সন্ধ্যায় গোসল করার জন্য তাকে গালমন্দ করা হয়েছে মাত্র। কিন্তু অন্তরার বাবা বিষয়টিকে বড় আকার ধারণ করানোর চেষ্টা করছে।
চাটমোহর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সেলিম রেজা জানান,অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্তপূর্বক পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্যাগস :

চাটমোহরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূর মাথার চুল কর্তন

আপডেট সময় : ০৪:৪১:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২৩

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মুলগ্রাম ইউনিয়নের পাথাইলহাট গ্রামে পরিবারের সদস্যরা এক গৃহবধূকে যৌতুকের দাবিতে মারপিট করে মাথার চুল কর্তন করেছে বলে অভিযোগ। ৯৯৯-এ কল করার পর চাটমোহর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে গৃহবধূর পিতা চাটমোহর থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।
জানা গেছে,পাথাইলহাট গ্রামের আলামিন হোসেন তার স্ত্রী অন্তরা খাতুনকে নানা কারণে মারপিট করতো। আলামিনের মা পুত্রবধূকে গালমন্দ করতো বিভিন্ন সময়ে। গত শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) রাতে আলামিন যৌতুকের দাবি করে না পেয়ে তার স্ত্রীকে মারধর করে। একপর্যায়ে স্ত্রীর মাথার চুল কেটে দেয়। খবর পেয়ে অন্তরার পিতা ছোট গুয়াখড়া গ্রামের মানিক হোসেন মেয়ের বাড়িতে গেলে,তাকে মেয়ের সাথে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। গ্রামের লোকজনকে বলার পর কোন প্রতিকার না পেয়ে ৯৯৯-এ ফোন করেন। পুলিশ শনিবার (২ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে গিয়ে গৃহবধূ অন্তরাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। অন্তরার পিতা থানায় অভিযোগ করেন। গৃহবধূর শ^শুড় আবুল কাশেম,অন্তরাকে মারপিট করা কিংবা যৌতুক দাবি করার ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যে। প্রতিদিন বাড়ির কাজকর্ম শেষে সন্ধ্যায় গোসল করার জন্য তাকে গালমন্দ করা হয়েছে মাত্র। কিন্তু অন্তরার বাবা বিষয়টিকে বড় আকার ধারণ করানোর চেষ্টা করছে।
চাটমোহর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সেলিম রেজা জানান,অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্তপূর্বক পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।