ঢাকা ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ট্রেনের আগুনে দগ্ধ ৮ জনের কেউ শঙ্কামুক্ত নন

আমাদের বড়াল ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৩:৫১:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪ ৯৮ বার পঠিত

রাজধানীর গোপীবাগে বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আট জন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন আছেন। প্রত্যেকের শ্বাসনালী পুড়ে যাওয়া কেউ শঙ্কামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন বার্ন ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন। শনিবার (৬ জানুয়ারি) হাসপাতালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।
সামন্ত লাল সেন বলেন,‘এখানে ভর্তি আট জন। বার্নের পার্সেন্টেজ বেশি না,কারও ৯ পার্সেন্ট,৮ পার্সেন্ট। অনেকের বাইরে কোনো বার্নই হয়নি। সবচেয়ে বিপদজনক হলো, তাদের সবারই শ্বাসনালী পুড়ে গেছে।’
তিনি বলেন,‘কোনো রোগী এখনও ঝুঁকিমুক্ত নন। যতক্ষণ পর্যন্ত তারা বাসায় না যাবে তাদেরকে আমরা আশঙ্কামুক্ত বলতে পারি না। আরেকটা কথা বলতে পারি, যখনই তারা ভালো হয়ে যাবে তাদের যে মেন্টাল ট্রমা আমি দেখলাম, একটা বাচ্চা ভয় পাচ্ছে; চিৎকার শুনে ভয় পায়, রোগীরা ভীষণ আতঙ্কিত। এ আতঙ্ক যে কবে কাটবে এটা বলা যায় না। এটার দীর্ঘ মেয়াদী চিকিৎসার দরকার।’
উল্লেখ্য, শুক্রবার (৫ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে রাজধানীর গোপীবাগ এলাকায় ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিটের চেষ্টায় রাত ১০টা ২০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুনে পুড়ে দুই নারী, এক শিশুসহ চার জনের মৃত্যু হয়।

ট্যাগস :

ট্রেনের আগুনে দগ্ধ ৮ জনের কেউ শঙ্কামুক্ত নন

আপডেট সময় : ০৩:৫১:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪

রাজধানীর গোপীবাগে বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আট জন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন আছেন। প্রত্যেকের শ্বাসনালী পুড়ে যাওয়া কেউ শঙ্কামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন বার্ন ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন। শনিবার (৬ জানুয়ারি) হাসপাতালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।
সামন্ত লাল সেন বলেন,‘এখানে ভর্তি আট জন। বার্নের পার্সেন্টেজ বেশি না,কারও ৯ পার্সেন্ট,৮ পার্সেন্ট। অনেকের বাইরে কোনো বার্নই হয়নি। সবচেয়ে বিপদজনক হলো, তাদের সবারই শ্বাসনালী পুড়ে গেছে।’
তিনি বলেন,‘কোনো রোগী এখনও ঝুঁকিমুক্ত নন। যতক্ষণ পর্যন্ত তারা বাসায় না যাবে তাদেরকে আমরা আশঙ্কামুক্ত বলতে পারি না। আরেকটা কথা বলতে পারি, যখনই তারা ভালো হয়ে যাবে তাদের যে মেন্টাল ট্রমা আমি দেখলাম, একটা বাচ্চা ভয় পাচ্ছে; চিৎকার শুনে ভয় পায়, রোগীরা ভীষণ আতঙ্কিত। এ আতঙ্ক যে কবে কাটবে এটা বলা যায় না। এটার দীর্ঘ মেয়াদী চিকিৎসার দরকার।’
উল্লেখ্য, শুক্রবার (৫ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে রাজধানীর গোপীবাগ এলাকায় ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিটের চেষ্টায় রাত ১০টা ২০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুনে পুড়ে দুই নারী, এক শিশুসহ চার জনের মৃত্যু হয়।