ঢাকা ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তীব্র গরমে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ

আমাদের বড়াল ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৫:০৭:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৩০ বার পঠিত

তীব্র তাপপ্রবাহে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ সুরক্ষায় দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আরও ৭ দিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এতে প্রাথমিক, মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং সরকারি-বেসরকারি কলেজ, মাদরাসা, কারিগরি প্রতিষ্ঠান আগামী ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধই থাকছে। ২৮ এপ্রিল থেকে পুনরায় ক্লাস শুরু হবে।
শনিবার (২০ এপ্রিল) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরসহ (মাউশি) স্ব স্ব দপ্তরগুলোর পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
পবিত্র রমজান,ঈদুল ফিতর,গ্রীষ্মকালীন অবকাশসহ বেশ কয়েকটি ছুটির সমন্বয়ে ২৬ দিন পর রোববার (২১ এপ্রিল) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কথা ছিল। সারাদেশে চলমান তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খুলে বরং আরও ছুটি বাড়ানোর দাবি জানিয়ে আসছিলেন অভিভাবকরা। সারবিক দিক বিবেচনা করে সরকার ছুটি বাড়ানোর ঘোষণা দিলো।
মাউশির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সারাদেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তাপদাহ ও আবহাওয়া দপ্তরের সতর্কতা জারির পরিপ্রেক্ষিতে মাউশি অধিদপ্তরের আওতাধীন সব সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পূর্বনির্ধারিত ছুটি শেষে ২১ এপ্রিলে খোলার পরিবর্তে আগামী ২৮ এপ্রিল যথারীতি খুলবে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ও পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে একই ঘোষণা দিয়েছে।
২৬ দিনের দীর্ঘ ছুটি শেষে রোববার থেকে পুরোদমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু হওয়ার কথা ছিল। তবে যে সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে, তখন দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা (হিট অ্যালার্ট) জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এতে বলা হয়েছে, দেশের ওপর দিয়ে চলমান তাপপ্রবাহ শুক্রবার থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টা অব্যাহত থাকতে পারে এবং তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে।
তীব্র গরমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও শিক্ষার্থীদের ক্লাসে পাঠানো নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় ছিলেন অভিভাবকরা। তারা তাপপ্রবাহের মধ্যে স্কুল না খোলার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। সরকার তাতে সাড়া দিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার একদিন আগেই ছুটি আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর ঘোষণা দিলো।

ট্যাগস :

তীব্র গরমে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ

আপডেট সময় : ০৫:০৭:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

তীব্র তাপপ্রবাহে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ সুরক্ষায় দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আরও ৭ দিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এতে প্রাথমিক, মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং সরকারি-বেসরকারি কলেজ, মাদরাসা, কারিগরি প্রতিষ্ঠান আগামী ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধই থাকছে। ২৮ এপ্রিল থেকে পুনরায় ক্লাস শুরু হবে।
শনিবার (২০ এপ্রিল) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরসহ (মাউশি) স্ব স্ব দপ্তরগুলোর পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
পবিত্র রমজান,ঈদুল ফিতর,গ্রীষ্মকালীন অবকাশসহ বেশ কয়েকটি ছুটির সমন্বয়ে ২৬ দিন পর রোববার (২১ এপ্রিল) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কথা ছিল। সারাদেশে চলমান তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খুলে বরং আরও ছুটি বাড়ানোর দাবি জানিয়ে আসছিলেন অভিভাবকরা। সারবিক দিক বিবেচনা করে সরকার ছুটি বাড়ানোর ঘোষণা দিলো।
মাউশির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সারাদেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তাপদাহ ও আবহাওয়া দপ্তরের সতর্কতা জারির পরিপ্রেক্ষিতে মাউশি অধিদপ্তরের আওতাধীন সব সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পূর্বনির্ধারিত ছুটি শেষে ২১ এপ্রিলে খোলার পরিবর্তে আগামী ২৮ এপ্রিল যথারীতি খুলবে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ও পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে একই ঘোষণা দিয়েছে।
২৬ দিনের দীর্ঘ ছুটি শেষে রোববার থেকে পুরোদমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু হওয়ার কথা ছিল। তবে যে সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে, তখন দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা (হিট অ্যালার্ট) জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এতে বলা হয়েছে, দেশের ওপর দিয়ে চলমান তাপপ্রবাহ শুক্রবার থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টা অব্যাহত থাকতে পারে এবং তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে।
তীব্র গরমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও শিক্ষার্থীদের ক্লাসে পাঠানো নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় ছিলেন অভিভাবকরা। তারা তাপপ্রবাহের মধ্যে স্কুল না খোলার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। সরকার তাতে সাড়া দিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার একদিন আগেই ছুটি আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর ঘোষণা দিলো।