ঢাকা ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাবনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সবুজকে আদালতে তলব

বিশেষ প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩ ৩১৯ বার পঠিত

‘পাবনা-৩ আসনে মকবুল হোসেন চাচা ছাড়া কেউ ভোট করতে পারবে না’ পথসভায় এমন বক্তব্য দেয়ায় পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান সবুজকে তলব করেছেন যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আদালত।
সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে তলবের নোটিশ জারি করেন পাবনা-৩ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধানী কমিটির সদস্য ও যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ তাজউল ইসলাম।
গত শনিবার (২ ডিসেম্বর) পাবনার চাটমোহরে আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা উপজেলা সদরে নৌকার প্রার্থী মোঃ মকবুল হোসেনের পক্ষে মিছিল করেন। মিছিল শেষে উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে পথসভায় বক্তব্য দেন পাবনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান সবুজ। সেখানে বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘পাবনা-৩ আসনে মকবুল চাচা ছাড়া কেউ ভোট করতে পারবেনা। যারা নৌকার বিপক্ষে অবস্থান করবে আমরা তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলাম। কোনো ছাত্রনেতা যদি নৌকার বিপক্ষে অবস্থান করে তাহলে আমরা তাকে ছাত্রলীগে থাকতে দেবো না। শুধু ছাত্রলীগ কেন, ভবিষ্যতে যুবলীগ, আওয়ামীলীগ কোনো সংগঠনে আমরা জায়গা দেবো না।’
এরপর রবিবার (৩ ডিসেম্বর) দৈনিক ইত্তেফাকের অনলাইনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর নজরে আসায় স্ব-প্রণোদিত হয়ে ‘নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ও আইন ভঙ্গের কারণে কেন সবুজের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে না’ তা জানতে চেয়ে তলব করে নোটিশ দিয়েছেন আদালত।
আগামীকাল মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) মিজানুর রহমান সবুজকে স্ব-শরীরে আদালতে উপস্থিত হয়ে নিজে অথবা তার প্রতিনিধির মাধ্যমে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য নোটিশ দিয়েছেন পাবনা-৩ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধানী কমিটির সদস্য,যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ তাজউল ইসলাম। পাবনার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ তাজউল ইসলাম নোটিশ জারির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এ ব্যাপারে মিজানুর রহমান সবুজ বলেন ‘আদালত আমার কাছে লিখিত ব্যাখ্যা চেয়েছেন। আমি আদালতে লিখিতভাবে জানাব। তিনি দাবি করেন, তার ওইদিনের বক্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করেছেন প্রতিপক্ষের লোকজন।’

ট্যাগস :

পাবনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সবুজকে আদালতে তলব

আপডেট সময় : ০৫:৪৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩

‘পাবনা-৩ আসনে মকবুল হোসেন চাচা ছাড়া কেউ ভোট করতে পারবে না’ পথসভায় এমন বক্তব্য দেয়ায় পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান সবুজকে তলব করেছেন যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আদালত।
সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে তলবের নোটিশ জারি করেন পাবনা-৩ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধানী কমিটির সদস্য ও যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ তাজউল ইসলাম।
গত শনিবার (২ ডিসেম্বর) পাবনার চাটমোহরে আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা উপজেলা সদরে নৌকার প্রার্থী মোঃ মকবুল হোসেনের পক্ষে মিছিল করেন। মিছিল শেষে উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে পথসভায় বক্তব্য দেন পাবনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান সবুজ। সেখানে বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘পাবনা-৩ আসনে মকবুল চাচা ছাড়া কেউ ভোট করতে পারবেনা। যারা নৌকার বিপক্ষে অবস্থান করবে আমরা তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলাম। কোনো ছাত্রনেতা যদি নৌকার বিপক্ষে অবস্থান করে তাহলে আমরা তাকে ছাত্রলীগে থাকতে দেবো না। শুধু ছাত্রলীগ কেন, ভবিষ্যতে যুবলীগ, আওয়ামীলীগ কোনো সংগঠনে আমরা জায়গা দেবো না।’
এরপর রবিবার (৩ ডিসেম্বর) দৈনিক ইত্তেফাকের অনলাইনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর নজরে আসায় স্ব-প্রণোদিত হয়ে ‘নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ও আইন ভঙ্গের কারণে কেন সবুজের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে না’ তা জানতে চেয়ে তলব করে নোটিশ দিয়েছেন আদালত।
আগামীকাল মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) মিজানুর রহমান সবুজকে স্ব-শরীরে আদালতে উপস্থিত হয়ে নিজে অথবা তার প্রতিনিধির মাধ্যমে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য নোটিশ দিয়েছেন পাবনা-৩ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধানী কমিটির সদস্য,যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ তাজউল ইসলাম। পাবনার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ তাজউল ইসলাম নোটিশ জারির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এ ব্যাপারে মিজানুর রহমান সবুজ বলেন ‘আদালত আমার কাছে লিখিত ব্যাখ্যা চেয়েছেন। আমি আদালতে লিখিতভাবে জানাব। তিনি দাবি করেন, তার ওইদিনের বক্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করেছেন প্রতিপক্ষের লোকজন।’