ঢাকা ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভাঙ্গুড়ায় দুটি মরদেহ উদ্ধার

ভাঙ্গুড়া(পাবনা)প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ০৩:২৯:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ অক্টোবর ২০২৩ ৭০ বার পঠিত

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় পৃথক ঘটনায় এক গো খামারী ও এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা—পুলিশ। রোববার সকালে বাড়ির পাশের সড়কের ওপর থেকে খামারী হেলাল উদ্দিন খা(৫০) এবং শোবার ঘর থেকে গৃহবধূ হাসি খাতুনের(৩০) মরদেহ উদ্ধার করা হয়।নিহত হেলাল উপজেলার কৈডাঙ্গা গ্রামের মৃত তোরাব আলী খাঁর ছেলে এবং হাসি খাতুন পৌরসভার চৌবাড়ীয়া দক্ষিণ পাড়া মহল্লার আসাদুল ইসলামের স্ত্রী। দুপুরে মরদেহটি দুটি ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। থানা—পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হেলাল খা একজন খামারী।তাঁর গরু ও মাছের খামার রয়েছে। রাত একটার দিকে হেলাল গরু দেখতে খামারে যান।পরে ভোর বেলা বাড়ির পাশের রাস্তার ওপর তাঁর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন পরিবারের লোকজন। অপরদিকে পারিবারিক কলহের কারণে শনিবার রাত আড়াইটার দিকে শোবার ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে গৃহবধূ হাসি খাতুন। ভোর রাতে বাড়ির লোকজন বিষযটি টের পান। খবর পেয়ে রোববার সকালে পুলিশ গিয়ে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম জানান,মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে মরদেহ দুটি পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগস :

ভাঙ্গুড়ায় দুটি মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৩:২৯:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ অক্টোবর ২০২৩

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় পৃথক ঘটনায় এক গো খামারী ও এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা—পুলিশ। রোববার সকালে বাড়ির পাশের সড়কের ওপর থেকে খামারী হেলাল উদ্দিন খা(৫০) এবং শোবার ঘর থেকে গৃহবধূ হাসি খাতুনের(৩০) মরদেহ উদ্ধার করা হয়।নিহত হেলাল উপজেলার কৈডাঙ্গা গ্রামের মৃত তোরাব আলী খাঁর ছেলে এবং হাসি খাতুন পৌরসভার চৌবাড়ীয়া দক্ষিণ পাড়া মহল্লার আসাদুল ইসলামের স্ত্রী। দুপুরে মরদেহটি দুটি ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। থানা—পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হেলাল খা একজন খামারী।তাঁর গরু ও মাছের খামার রয়েছে। রাত একটার দিকে হেলাল গরু দেখতে খামারে যান।পরে ভোর বেলা বাড়ির পাশের রাস্তার ওপর তাঁর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন পরিবারের লোকজন। অপরদিকে পারিবারিক কলহের কারণে শনিবার রাত আড়াইটার দিকে শোবার ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে গৃহবধূ হাসি খাতুন। ভোর রাতে বাড়ির লোকজন বিষযটি টের পান। খবর পেয়ে রোববার সকালে পুলিশ গিয়ে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম জানান,মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে মরদেহ দুটি পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।