ঢাকা ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিরাজগঞ্জে তিন উপজেলার দুটিতেই বর্তমান চেয়ারম্যান বিজয়ী

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ১১:০৫:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪ ১৪ বার পঠিত

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে সিরাজগঞ্জের ৩টি উপজেলায় বেসরকারি ফলাফলে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন। আর কাজিপুর উপজেলায় দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন খলিলুর রহমান সিরাজী। এ ছাড়া তাঁতসমৃদ্ধ অঞ্চল বেলকুচি উপজেলায় প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম।
বিজয়ী ঘোষণার পর থেকে তিনটি উপজেলার বিভিন্ন সড়কে বিজয় মিছিল করেন জয়ী প্রার্থীর অনুসারী, নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটাররা। এসময় শহর ও পাড়া মহল্লায় মিষ্টি বিতরণ করেন তারা। বুধবার (৮ মে) রাতে রিটানিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম এই ৩ উপজেলার ফলাফল ঘোষণা করেন।
সদর উপজেলায় মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন (আনারস) প্রতীকে ৪৭ হাজার ৮০৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি রাশেদ ইউসুফ জুয়েল (দোয়াত কলম) প্রতীকে পেয়েছেন ৪৩ হাজার ৯৮৪ ভোট।
কাজিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান সিরাজী (আনারস) প্রতীকে ৪৫ হাজার ২৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আশরাফুল ইসলাম (ঘোড়া) প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ৬০৪ ভোট।
বেলকুচি উপজেলায় ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম (দোয়াত কলম) প্রতীকে ৫৪ হাজার ৮৪২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আলহাজ্ব বদিউজ্জামান ফকির (মোটরসাইকেল) প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৩৫৭ ভোট।
বুধবার সকাল ৮টা থেকে এই ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। জেলার ৩ উপজেলায় প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ হয়েছে। প্রথমবারের মতো ইভিএমের মাধ্যমে ভোট হওয়ায় ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ ও উদ্দীপনা কাজ করেছে। সেই সঙ্গে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে তিনটি উপজেলা পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।

ট্যাগস :

সিরাজগঞ্জে তিন উপজেলার দুটিতেই বর্তমান চেয়ারম্যান বিজয়ী

আপডেট সময় : ১১:০৫:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে সিরাজগঞ্জের ৩টি উপজেলায় বেসরকারি ফলাফলে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন। আর কাজিপুর উপজেলায় দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন খলিলুর রহমান সিরাজী। এ ছাড়া তাঁতসমৃদ্ধ অঞ্চল বেলকুচি উপজেলায় প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম।
বিজয়ী ঘোষণার পর থেকে তিনটি উপজেলার বিভিন্ন সড়কে বিজয় মিছিল করেন জয়ী প্রার্থীর অনুসারী, নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটাররা। এসময় শহর ও পাড়া মহল্লায় মিষ্টি বিতরণ করেন তারা। বুধবার (৮ মে) রাতে রিটানিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম এই ৩ উপজেলার ফলাফল ঘোষণা করেন।
সদর উপজেলায় মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন (আনারস) প্রতীকে ৪৭ হাজার ৮০৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি রাশেদ ইউসুফ জুয়েল (দোয়াত কলম) প্রতীকে পেয়েছেন ৪৩ হাজার ৯৮৪ ভোট।
কাজিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান সিরাজী (আনারস) প্রতীকে ৪৫ হাজার ২৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আশরাফুল ইসলাম (ঘোড়া) প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ৬০৪ ভোট।
বেলকুচি উপজেলায় ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম (দোয়াত কলম) প্রতীকে ৫৪ হাজার ৮৪২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আলহাজ্ব বদিউজ্জামান ফকির (মোটরসাইকেল) প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৩৫৭ ভোট।
বুধবার সকাল ৮টা থেকে এই ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। জেলার ৩ উপজেলায় প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ হয়েছে। প্রথমবারের মতো ইভিএমের মাধ্যমে ভোট হওয়ায় ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ ও উদ্দীপনা কাজ করেছে। সেই সঙ্গে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে তিনটি উপজেলা পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।